• Home
  • Bangla
  • বাড়ি থেকে কাজের প্রতারণা থেকে দূরে থাকার 10টা টিপস

বাড়ি থেকে কাজের প্রতারণা থেকে দূরে থাকার 10টা টিপস

বাড়ি থেকে কাজের প্রতারণা থেকে দূরে থাকার 10টা টিপস

কোভিড-19 মহামারী আমাদের কাজ এবং ব্যক্তিগত জীবনে বিরাট ফারাক এনে জীবনকে গুরুতর ভাবে প্রভাবিত করেছে। অনেক লোকে এই মহামারীর সঙ্গে আসা অর্থনৈতিক মন্দায় নিজেদের কাজ হারিয়েছেন এবং একটা আর্থিক অনটনের মধ্যে পড়ে গিয়েছেন।  বিভিন্ন ফিল্ড এবং সেক্টরে নতুন চাকরির সুযোগ এসে, কর্মসংস্থান খোঁজা লোকেদের জন্য অনেক বাড়ি থেকে কাজের সুযোগ এনে দিয়েছে । ঠকবাজ কোম্পানিগুলো এবং ইন্টারনেট ঠকবাজরা এই মহামারী এবং তার পরিনতির কারণে মরিয়া হয়ে ওঠা বা এর থেকে উত্পন্ন হওয়া হতাশাকে মূলধন করে লোকেদের ঠকানোর এই সুযোগগুলোই কাজে লাগাচ্ছে । একজনকে জাল অনলাইন চাকরি অফার দেওয়া হয় যাকে সেই চাকরিটা পাওয়ার জন্য সংবেদনশীল তথ্য এবং ক্যাশ টাকা দিতে হয় বা তাদের অ্যাসাইনমেন্ট সম্পূর্ণ করার পরেও তাদের টাকা দেওয়া হয় না । এখানে বাড়ি থেকে কাজের জালিয়াতি থেকে দুরে থাকার জন্য কিছু অন্তর্দৃষ্টি এবং টিপস বা পরামর্শ দেওয়া হলো:  

নিরাপদ চাকরি খোঁজার প্ল্যাটফর্ম 

এই মহামারীর সময়ে লোকেদের বাড়ি থেকে কাজের সুযোগ দেওয়া অনেক অনলাইন পোর্টাল উঠে এসেছে। যেখানে তাদের মধ্যে বেশীর ভাগই বিশ্বাসযোগ্য, সেখানে বেশ গুরুত্বপূর্ণ সংখ্যক অনলাইন পোর্টালও আছে যারা লোকেদের বেআইনি চাকরি দিয়ে ঠকায় বা বলা অ্যাসাইনমেন্টের জন্য টাকা দেয় না। লোকে হামেশাই এই অনলাইন ঠকবাজদের শিকার হয়ে যায় এবং শেষ পর্যন্ত নতুন চাকরি পাওয়ার জন্য এই অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোতে সাইন ইন করার জন্য টাকা খসাতে হয়।  

বিপদের চিহ্ন বোঝা 

একটা বৈধ চাকরি এবং একটা জালের মধ্যে পার্থক্য বোঝার জন্য বিভিন্ন বিপদের চিহ্ন আছে। ভাল জ্ঞান এবং সাধারণ বোধ আপনাকে এই জালিয়াতিগুলো নির্মূল করতে এবং আবেদন করার জন্য বিশ্বাসযোগ্য চাকরির সুযোগ চিনতে সাহায্য করতে পারে। বেশীর ভাগ ভূয় চাকরি লোকেদের প্রচুর মাইনের প্যাকেজের প্রলোভন দেখাতে চায় যেগুলো যা কাজ করতে হতে পারে তার সঙ্গে কাছাকাছি অনুপাতেরও নয়। ভাল চাকরির সুযোগ চেনার জন্য কোম্পানির দৃষ্টিকোন থেকে ভাবা এবং চাকরির সুযোগের চরিত্র বোঝা জরুরি।  

ঠিকঠাক গবেষণা এবং ভিত্তিমূলক কাজ 

ভিত্তিমূলক কাজ এবং গবেষণা আপনার অনলাইনে ঠকার থেকে বাঁচার মূল সুরক্ষা/প্রতিরোধক ব্যবস্থা। আপনি যে কোম্পানির সঙ্গে ডীল করছেন এবং সেই কোম্পানি আপনাকে যে চাকরির সুযোগ দিচ্ছে সেই ব্যাপারে বেশী করে জানার চেষ্টা করবেন। অনলাইন ঠকবাজরা নতুন আবেদনকারীদের একটা মিথ্যে বিশ্বাস দিয়ে ঠকানোর জন্য নামকরা কোম্পানির মত একইরকমের ওয়েবসাইট খোলে। সারা পৃথিবী জুড়ে এরকম অনেক মানুষ আছেন যারা এই ধরণের সন্দেহজনক জালিয়াতির শিকার হয়েছেন। ওই পদের জন্য আবেদন করার আগে ওই কোম্পানির বিষয়ে সমস্ত তথ্য যোগাড় করুন এবং ওটার বৈধতা নিশ্চিত করুন। ওই কোম্পানির অফার করা মাইনের প্যাকেজের সঙ্গে অন্যান্য কোম্পানির একই পদের জন্য অফার করা প্যাকেজের তুলনা করুন এবং ওই কোম্পানির যে চাকরির জন্য আপনি আবেদন করছেন সেটার চরিত্রের  ব্যাপারেও একটা সঠিক ধারণা নিন।  

চাকরির জন্য আগে টাকা দেওয়া এড়িয়ে চলুন 

অনলাইন ঠকবাজরা সাধারণত নতুন আবেদনকারীকে কোম্পানিতে খরচ করতে বা ওই কোম্পানিতে তাদের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিশ্চিত করতে সামান্য পরিমানের টাকা দিতে বোলে রোজগার করে নেয়। এইগুলো হলো একটা বৈধ কোম্পানি এবং একটা জাল অনলাইন চাকরিকে আলাদা করে দিতে পারে এরকম কিছু সবচেয়ে বড় সাবধান চিহ্ন কারণ  কোনো চাকরির পদেই যোগ দেওয়ার  আগে  প্রচুর পরিমানের অগ্রিম টাকার পেমেন্ট থাকে না। আবার কিছু চাকরিতে আপনার কাজের প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য সামান্য অগ্রিম পেমেন্টের প্রয়োজন হয় যেটা বেশীর ভাগই প্রশিক্ষণ বা ওই পদে ঢোকার সময়ের পরেই দিতে হয়। ওই কোম্পানিগুলোর ব্যাপারে ঠিক করে গবেষণা করে নেবেন এবং চাকরির সুযোগের জন্য অগ্রিম টাকা দেবেন না যেহেতু এরকম অনলাইন চাকরির বেশীর ভাগই জাল যেগুলো লোকেদের লুটে নেওয়ার জন্য তৈরী হয়।  

পিরামিড প্রোকল্প এড়িয়ে চলুন 

এই মহামারী চালু হওয়ার সঙ্গে মরিয়া হয়ে ওঠা লোকেদের ওই কোম্পানিগুলোতে টাকা ব্যয় করার জন্য আকৃষ্ট করতে আবার পিরামিড প্রোকল্প ট্রেন্ডে ফিরে এসেছে। পিরামিড প্রোকল্পগুলো আরো বেশী বেশী লোকেদের যোগ দেওয়ার জন্য আকৃষ্ট করে তাদের প্রচুর উন্নতি এবং টাকা বাড়ানোর মিথ্যে আশ্বাস দিয়ে তাদের দিয়ে যথেষ্ট পরিমানের টাকা ব্যয় করায়। এই কোম্পানিগুলো নিযুক্তদের যোগদানের ওপর তৈরী হয় যারা নতুন লোক খুজতে এবং ব্যয় করার জন্য নতুন কর্মী আকর্ষণ করা ওই কোম্পানিগুলোর নেওয়া আক্রমনাত্মক মার্কেটিং পদ্ধতির খুজতে উত্সাহিত হয়। ওরা সাধারণত কর্মীদের চুক্তিতে বেঁধে রাখে এবং সেগুলো ছাড়ার জন্য বিশাল টাকা লাগে যেটা লোকেদের বেশী ভাল চাকরির সুযোগে চলে যাওয়া থেকে আটকায়।  

কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সঠিক যোগাযোগের মাধ্যম তৈরী করুন 

আপনার কোম্পানির পরিচালকের সঙ্গে সঠিক ভাবে কথোপকথন করুন এবং এই চাকরির সুযোগের বিষয়ে যেকোনো সন্দেহ নিশ্চিত করে নিন। যেকোনো চাকরির সুযোগ যেটা কোনো ফোন বা ভিডিও সাক্ষাৎকার ছাড়াই সরাসরি নিয়োগ করে সেটার বিপদের ঘন্টা বাজানো উচিত কারণ যেকোনো যোগ দেওয়ার যোগ্য কোম্পানি কর্মী নিয়োগ করার আগে কমপক্ষে একটা টেলিফোনিক সাক্ষাৎকার নেয়। নতুন চাকরির সুযোগে যোগ দেওয়ার আগে কাজের শর্তাবলী, মাইনের প্যাকেজ এবং পেমেন্টের নিয়ম বা শর্তাবলী পরিষ্কার ভাবে আলোচনা করে নিন এবং ওদের থেকে আপনার চাকরির পদের ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ার জন্য ওই কোম্পানির সঙ্গে আপনার যোগাযোগের ব্যক্তির সঙ্গে একটা ভাল সম্পর্ক তৈরী করার চেষ্টা করুন।  

আটকে রাখা অগ্রিমচুক্তি সই করা এড়িয়ে চলুন 

লোকে অনেক সময় হালকা-দাবির কম টাকা দেওয়া চাকরির শিকার হয়ে যায় এবং তাতে আটকে যায় কারণ তাড়া সেখানে যোগ দেওয়ার আগে চুক্তি করে ফেলে। বর্ধিত সময়ের চুক্তি সই করবেন না এবং ওই চুক্তির সমস্ত ধারাগুলো পড়ুন এটা নিশ্চিত করার জন্য যে সেখানে এমন কোনো লুকোনো ফাঁদ নেই যেটা আপনার স্বাধীনতা এবং কর্মজীবনকে পঙ্গু করে দিতে পারে।  

পেমেন্টের পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করে নিন 

নিজেকে চাকরির সুযোগে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ করার আগে মাইনের প্যাকেজ এবং পেমেন্টের বিষয়ে আলোচনা এবং দর করে নেওয়া প্রয়োজন। অনলাইন জালিয়াতি বেশীর ভাগই অ্যাসাইনমেন্টের শেষে টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে লোকেদের দিয়ে বিশাল অ্যাসাইনমেন্ট এবং কাজের মত পুনরাবৃত্তিমূলক ডাটা এন্ট্রি এবং ডাটা সাজানোর কাজ করিয়ে নেয়। এই ধরণের ঠকবাজরা অ্যাসাইনমেন্ট শেষ হওয়ার ঠিক পরেই টাকা দেওয়ার কথা রাখে বা এবং কর্মীদের অন্ধকারে রেখে তাদের ঠকায়। কাজ শুরু করার আগে আপনার চাকরির শর্তাবলী এবং পেমেন্টের পদ্ধতি নিয়ে আলকোনা করে নিন এবং কাজের উন্নতির তথ্য পাওয়ার জন্য আপনার সহকর্মীদের সঙ্গে একটা ভাল সম্পর্ক রাখুন।     

সংবেদনশীল ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত রাখুন 

চাকরির পোর্টাল কর্মসংস্থানের সুযোগ খোঁজা লোকেদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে এবং অনলাইন ঠকবাজরা এটারই সুবিধা নেয়। জাল সাইটগুলো ব্যাঙ্কের খুঁটিনাটি এবং অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্যের মত সংবেদনশীল তথ্য সংগ্রহ করে এবং এই তথ্য ব্যবহার করে লোকেদের সঙ্গে কারসাজি করে তাদের পরিচিতি চুরি এবং ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির বেশী সুযোগ করে দেয়।  

অনলাইন জালিয়াতি রিপোর্ট করুন 

ভাল গবেষণা এবং সাধারণ জ্ঞান আপনাকে অনলাইন জালিয়াতি এবং জাল চাকরির সুযোগ থেকে রক্ষা করতে পারে। আপনি যখনই এরকম কোনো অবৈধ চাকরির তালিকার ব্যাপারে জানতে পারবেন তখনি তাদের বিষয়ে রিপোর্ট করুন এবং অন্যদের চাকরির সুযোগ পেতে সাহায্য করুন। এটা অনলাইনে বিশ্বাসযোগ্য চাকরি খোঁজার চেষ্টা করা লক্ষ লক্ষ লোকের সাহায্য করবে। ফেসবুক এবং হোয়াটসঅ্যাপের সোশ্যাল মিডিয়া কমিউনিটিগুলো চাকরির সুযোগ খোঁজা লোকেদের মূল্যবান তথ্য দেওয়ার জন্য বিরাট সাহায্য হতে পারে কারণ ওদের থেকে লোকেদের বিশদ রিভিউ পাওয়া যেতে পারে।  

সমাপ্তি 

এই মহামারী বিস্তৃত বেকারত্ব এবং অসমতা এনে সারা পৃথিবী জুড়ে লোকেদের ব্যক্তিগত এবং কর্ম জীবনকে বিব্রত করেছে। বিভিন্ন ধরণের বাড়ি থেকে কাজ আছে যেগুলো বাড়তি আয়ের উৎস থেকে আর্থিক স্থিরতা পাওয়ার জন্য নেওয়া যেতে পারে এবং আপনার পেশা এবং কর্ম জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটা বৈধ চাকরির সুযোগ চিহ্নিত করা জরুরি। এই টিপস বা উপদেশগুলো অনুসরণ করুন এবং আপনার লক্ষ্য এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সঠিক চাকরিটা খুঁজে বের করুন এবং খুশী

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *